টাঙ্গাইলশনিবার , ২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. খেলাধুলা
  5. গণমাধ্যম
  6. জবস
  7. জাতীয়
  8. টপ নিউজ
  9. টাঙ্গাইলে করোনা মহামারি
  10. তথ্যপ্রযুক্তি

২ বছরে ৩ কোচ তাড়ানোর দুয়ারে বার্সেলোনা

অনলাইন ডেস্ক
আপডেট : অক্টোবর ১, ২০২১
Link Copied!

বার্সেলোনা যেন ফিরে গেছে ঠিক চলতি শতাব্দির শুরুতে। ২০০১ থেকে ২০০৩ পর্যন্ত তিন বছরে চার কোচ বদলেছিল কাতালানরা। এবারও ঠিক তেমনই পরিস্থিতির দুয়ারে এসে ঠেকেছে দলটি। স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, এর্নেস্তো ভালভার্দে, কিকে সেতিয়েনের পর বিদায়ের পথে আছেন বার্সার বর্তমান কোচ রোনাল্ড কোম্যানও।

গেল মৌসুমে তার অধীনে লিগ জয়ের দুয়ারে ছিল দল। সেখান থেকে শেষ ৯ ম্যাচে ৩ হার, ২ ড্রয়ে সে সুযোগ খোয়ায় কোম্যানের শিষ্যরা। মৌসুমের একমাত্র অর্জন ছিল এক কোপা দেল রে। তবে দলের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ পারফর্ম্যান্স ছিল তথৈবচ। পিএসজি আর জুভেন্তাসের কাছে দলটা হেরেছিল যথাক্রমে ৪-১ ও ৩-০ ব্যবধানে।

আগের মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যেখান থেকে শেষ করেছিল দলটা, চলতি মৌসুমে যেন সেখান থেকেই শুরু তাদের। বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ঘরের মাঠে ৩-০ গোলে হেরে শুরু, এরপর সবশেষ বেনফিকার মাঠে কাতালান দলটি হেরেছে সেই একই ব্যবধানে। প্রতিপক্ষ গোলমুখে নেই দলটির একটি শটও। এমন পরিস্থিতি দলটির চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ইতিহাসে হয়নি আর কখনোই।

তাকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা অবশ্য ছিল অনেক আগে থেকেই। খেলোয়াড়দের অতর্কিতভাবে দল থেকে ব্রাত্য করে দেওয়া, বোর্ড সভাপতির সঙ্গে বনিবনতা না হওয়া থেকে শুরু। এরপর সম্প্রতি যোগ হয়েছে দলের খেলার ধরন বদলে দেওয়া, ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে খেলোয়াড়দের আগলে না রেখে তাদের ওপর আক্রমণ করে বসা, ইত্যাদি। এ তালিকায় সবশেষ সংযোজন ক্লাবটির বর্তমান পারফর্ম্যান্স। সবকিছু মিলিয়েই বার্সেলোনায় কোম্যানের পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গেছে।

খেলোয়াড়রা অবশ্য খোলাখুলিই বলছেন, কোচ বদলে দেওয়াই সমস্যা সমাধানের উপায় নয়। কিন্তু কর্তাব্যক্তিরা তা মানতে নারাজ। ক্লাবের সভাপতি হোয়ান লাপোর্তার সঙ্গে ক্লাবের পরিচালক মাতেও অ্যালেমানি, রাফা ইয়ুস্তে, এনরিক ম্যাসিপদের বৈঠক হচ্ছে দফায় দফায়। আলোচ্য বিষয়? বার্সায় কোম্যানের ভবিষ্যৎ।

তবে তাকে কোচের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার আগে স্প্যানিশ ক্লাবটি বেশ কিছু প্রশ্নের মুখোমুখি এসে দাঁড়িয়েছে। যদি ক্লাবের কোচের পদ থেকে তাকে সরিয়েই দেওয়া হয়, তাহলে তার জায়গায় কাকে আনবে, সবচেয়ে বড় প্রশ্ন এটাই। কোচ বদলের সবচেয়ে ভালো সময় দুই মৌসুমের বিরতিতে। মাঝ মৌসুমে শীর্ষ পর্যায়ের কোচেদের কেউই ক্লাব ছাড়তে চান না। দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনাও করা যায় না। স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, হুট করেই সিদ্ধান্ত নিতে চান না বার্সা সভাপতি লাপোর্তা।

আরেকটা বড় প্রশ্ন ক্লাবের আর্থিক অবস্থা। কোম্যানকে মাঝ মৌসুমে বিদায় করলে এখনই ১২ মিলিয়ন ইউরো মাসুল গুণতে হবে বার্সাকে, জানাচ্ছে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এল পাইস। সাবেক কোচ কিকে সেতিয়েনেরই পাওনা বেতন নিয়েই এখনো দেন দরবার চলছে ক্লাবটির সঙ্গে। ফলে চলমান আর্থিক মন্দার সময়ে ক্লাবটি আবারও একই পথে হাঁটবে কিনা, এ নিয়েও আছে প্রশ্ন।

এরপরও কোম্যানের জায়গা প্রশ্নের মুখেই; এমনকি ক্লাবের পরবর্তী কোচের খোঁজও চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে পুরোদমে, জানাচ্ছে স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম। আজকালের ভেতরেই কোম্যানের বিদায়ের সম্ভাবনা নেই, শনিবার রাতেই দলটি মুখোমুখি হবে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম দেপোর্তেস কুয়াত্রো জানাচ্ছে সে ম্যাচের পর আবার আলোচনায় বসে তখনই সিদ্ধান্ত নেবেন লাপোর্তারা।

সিদ্ধান্ত দুই দিকেই যাওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। তবে যদি সিদ্ধান্ত হয় তাকে সরিয়ে দেওয়ার, তাহলে গত ২১ মাসে ভালভার্দে ও কিকে সেতিয়েনের পর তৃতীয় কোচ হিসেবে বিদায় নেবেন রোনাল্ড কোম্যান।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।