টাঙ্গাইলশনিবার , ২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. খেলাধুলা
  5. গণমাধ্যম
  6. জবস
  7. জাতীয়
  8. টপ নিউজ
  9. টাঙ্গাইলে করোনা মহামারি
  10. তথ্যপ্রযুক্তি

অনলাইন ডেস্ক
আপডেট : এপ্রিল ১৬, ২০২১
Link Copied!

ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞার মধ্যে আটকে পড়া প্রবাসী কর্মীদের নিজ নিজ কর্মস্থলে ফেরাতে পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ দেশে শতাধিক বিশেষ ফ্লাইট অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এই পাঁচটি দেশ হলো সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, কাতার ও সিঙ্গাপুরে। বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যায় আন্তঃমন্ত্রণালয়ের এক অনলাইন বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সেখানে বলা হয় আগামী শনিবার (১৭ এপ্রিল) থেকে এসব দেশে ফ্লাইট চলাচল শুরু হবে।

**সৌদি আরব, ইউএই, ওমান, কাতার ও সিঙ্গাপুরগামীদের জন্যে বিশেষ ফ্লাইট

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) জানিয়েছে, ওই দিন থেকে দিনে বিভিন্ন উড়োজাহাজ কোম্পানির নির্ধারিত যেসব ফ্লাইট আছে, সেগুলোই বিশেষ ফ্লাইট হিসেবে যাওয়ার অনুমতি পাবে।

বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেছেন, নিষেধাজ্ঞার প্রথম তিন দিনে যেসব ফ্লাইট বাতিল হয়েছে, ওই ফ্লাইটের প্রবাসী যাত্রীদের তালিকা তৈরি করবে প্রবাসী মন্ত্রণালয়। তারপর তাদের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আলাদা ফ্লাইটের ব্যবস্থা করা হবে।

চেয়ারম্যান আরও জানান, ‘প্রবাসী কর্মীদের বিষয়টি মাথায় রেখে শনিবার থেকে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, কাতার ও সিঙ্গাপুরে শতাধিক বিশেষ ফ্লাইটের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রবাসী কর্মীরা এসব ফ্লাইটে করে তাদের কর্মস্থলে যোগ দিতে পারবেন।’

‘এ সব দেশে যদি কোনো বাংলাদেশি আটকে থাকেন, আর তারা যদি দেশে ফিরতে চান তাহলে নির্দিষ্ট কিছু শর্ত পূরণ করে ফেরা যাবে। তবে এ ক্ষেত্রে তাদের কোভিড নেগেটিভ সনদ থাকতে হবে এবং দেশে ফেরার পর ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকার শর্ত মানতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘যেহতু এখন দেশে কোভিড পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে, এ অবস্থায় পর্যাপ্ত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করাও কঠিন। এ কারণে অধিকসংখ্যক প্রবাসীকে ফেরানো সম্ভব না। হয়তো অল্প কিছুসংখ্যক প্রবাসীকে আমরা ফেরার সুযোগ দিতে পারব।’

গতকাল বুধবার (১৪ এপ্রিল) জানা গিয়েছিল, সর্বাত্মক কঠোর বিধিনিষেধের কারণে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকায় আটকে পড়া সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), ওমান, কাতার ও সিঙ্গাপুরগামীদের জন্যে শিগগিরই বিশেষ ফ্লাইট চালু করতে যাচ্ছে সরকার সরকার।

বৈঠকে অংশ নেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব, বেবিচক চেয়ারম্যান, বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

গত ১১ এপ্রিল বেবিচক জানায়, ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের জন্য সরকারি বিধিনিষেধ চলাকালীন সব ধরনের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকবে। ১২ এপ্রিল মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের দেওয়া প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সব আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বন্ধ থাকবে।

ফ্লাইট বন্ধের এই সিদ্ধান্তে বিপাকে পড়েন প্রবাসী কর্মী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানের সঙ্গে জড়িত ব্যবসায়ীরা। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এই মুহূর্তে ৫০-৬০ হাজার ভিসা প্রক্রিয়াধীন, ২০-২৫ হাজার কর্মীর টিকিট ইস্যু করা আছে।
প্রবাসী কর্মীরা জানান, দীর্ঘদিন দেশে আটকে থাকার পর অনেক চেষ্টা করে ও অর্থ খরচ করে গন্তব্য দেশের শর্ত অনুযায়ী তারা টিকিট করাসহ কোয়ারেন্টিনের হোটেল বুকিং দিয়েছিলেন। ফ্লাইট বন্ধ হওয়ায় তারা নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।